মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৬ August ২০১৫

মনিটরিং পরিদপ্তর

মনিটরিং পরিদপ্তর স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সাল থেকে বার্তা বিভাগের অন্তর্ভূক্ত একটি আলাদা ও স্বয়ংসম্পূর্ণ অঙ্গ হিসেবে কাজ করছে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের বেতার কেন্দ্র থেকে সম্প্রচারিত বাংলাদেশ বিষয়ক সংবাদ সংকলন করে দৈনিক মনিটরিং রিপোর্ট ‘ডিএমআর’ প্রকাশ করা এ দপ্তরের প্রধান কাজ। বিশ্বের বিভিন্ন বেতার সম্প্রচার কেন্দ্র যেমন - বিবিসি, ভিওএ, আকাশবাণী, এনএইচকে, রেডিও তেহরান, ইত্যাদি থেকে বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় সম্প্রচারিত সংবাদ মনিটর করা হয়ে থাকে। উক্ত সংবাদগুলির মধ্য থেকে গুরুত্বপূর্ণ ও বাংলাদেশ বিষয়ে স্পর্শকাতর সংবাদ বাছাই করে লিপিবদ্ধ করা হয়। প্রতিদিন ২৪ ঘণ্টার লিপিবদ্ধ সংবাদসমূহ সংকলন করে দৈনিক রিপোর্ট আকারে ছাপানো হয়ে থাকে। অতঃপর এই প্রকাশনা সরকারের গুরুত্বপূর্ণ দপ্তর ও নির্বাহী কর্মকর্তাদের নিকট প্রেরণ করা হয়। কেন্দ্রীয় বার্তা সংস্থাকে গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ আইটেম তাৎক্ষণিকভাবে সরবরাহ করাও এই পরিদপ্তরের অন্যতম দায়িত্ব। এছাড়া, স্বল্পমেয়াদী পরিকল্পনার অধীনে বর্তমানে প্রতি মঙ্গলবার বিগত সপ্তাহের ডিএমআর এর ভিত্তিতে দেশের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড ও পদক্ষেপ এবং আন্তর্জাতিকভাবে প্রশংসিত স্বীকৃতিমূলক সংবাদের সমন্বয়ে ‘বিশ্ব বেতারে বাংলাদেশ’ শীর্ষক একটি বুলেটিন এ পরিদপ্তর কর্তৃক প্রচার করা হয়।
মনিটরিং পরিদপ্তর বার্তা বিভাগের একটি শাখা। এই পরিদপ্তর গোড়া থেকে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক বেতার কেন্দ্রের সংবাদ রেকর্ড ও লিপিবদ্ধ করে ‘দৈনিক মনিটরিং রিপোর্ট’ ডিএমআর প্রকাশ করে আসছে। এই ডিএমআর মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়সহ মন্ত্রণালয়, অধিদপ্তর ও গুরুত্বপূর্ণ দপ্তর সমূহে প্রেরণ করা হয়। এছাড়া, কেন্দ্রীয় বার্তা সংস্থায় এই ডিএমআর নিয়মিত সরবরাহ করা হয় সংবাদ বুলেটিনে অন্তর্ভূক্ত করার জন্য। সময়ের পরিসরে ডিএমআর এর উপযোগিতা সহ এই পরিদপ্তরের কর্মকান্ডের ব্যবহার যৌক্তিকিকরণের প্রয়োজন দেখা দেয়। এমতাবস্থায় বর্তমানে পরিবর্তিতভাবে এই দপ্তরের কর্মসূচী যেভাবে পরিচালিত হচ্ছে সেগুলো হলো-
ক. ডিএমআর প্রকাশ ।
খ. ইন্টারনেটে ডি এম আর প্রকাশ।
গ. কেন্দ্রীয় বার্তা সংস্থা থেকে “বিশ্ব বেতারে বাংলাদেশ” শীর্ষক একটি সাপ্তহিক বাংলা বুলেটিন প্রচার করে থাকে।
মনিটরিং পরিদপ্তরের কর্মকান্ডকে যুগোপযোগী করার লক্ষ্যে নিম্নলিখিত পদক্ষেপ গ্রহণ আবশ্যক-
১। অটোমেশন : পরিদপ্তরের সকল কর্মকান্ড পরিচালিত হয় গতানুগতিক পন্থায়। পুরান রিসিবার, রেডিও সেট এবং রেকর্ডারের মাধ্যমে সংবাদ সমূহ রেকর্ড করা হয়। ফলে রেকর্ডিং এর মান ক্ষুন্ন হয় এবং পুরাত এসব যন্ত্রপাতি সহজ লভ্য নয়। তাই প্রয়োজনীয় কম্পিউটÍ স্থাপনের মাধ্যমে রিসিভার থেকে সরাসরি কম্পিউটারে ধারণ করা।
২। “বিশ্ব বেতারে বাংলাদেশ” শীর্ষক সাপ্তাহিক বাংলা সংবাদ বুলেটিনের পাশাপাশী সেটাকে ইংরেজীতে প্রচার করা।
৩। মনিটরিং পরিদপ্তরের নিজস্ব ওয়েব সাইট ওপেন করে ডিএমআর এবং সাপ্তাহিক বুলেটিন প্রচার করা।
৪। বিদেশী বেতারের পাশাপাশি দেশের বেসরকারী বেতার মনিটর করার বিষয়টি বিবেচনা করা।


Share with :